Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

** সার্বজনীন আয়োডিনযুক্তলবন প্রকল্পঃ-নড়াইল জেলায় এই প্রকল্পের মাধ্যমে আয়োডিনের অভাব জনিত রোগ প্রতিরোধ আইন বাস্তবায়নের জন্য আয়োডিনযুক্ত লবন ব্যবহারের সচেতনা সৃষ্টির লক্ষে জেলা লবন কমিটির/উপজেলা লবন কমিটির সভা করা হয়। এছাড়া উপজেলা পর্যায়ে এ্যাডভোকেসি সভা ও স্কুল পর্যায়ে এ্যাডভোকেসি সভা করা হয়েছে। বিভিন্ন হাট-বাজারে পাইকারী/খুচরা লবন বিক্রেতাদের মাঝে আয়োডিন পরীক্ষার কিটস্‌ সহ পোস্টার/লিফলেট বিতরণের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। আয়োডিন বিহীন লবন বিক্রয় প্রতিরোধে জেলা প্রশাসনের সহায়তায় বিভিন্ন হাট-বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়ে থাকে।

         

** আত্ম-কর্মসংস্থান প্রকল্পঃ-ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের মাধ্যমে আত্ম-কর্মসংস্থান ও অন্যান্য বিশেষ জন গোষ্টির কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে ১৯৯৩খ্রি: সালে এই প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু হয়। প্রাথমিক পর্যায়ে উদ্যোক্তা চিহ্নিত ও বাছাই করতঃ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। প্রকল্প নির্বাচন পূর্বক ঋণ সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে শিল্প স্থাপনে আর্থিক সহায়তা করা হয়। এই প্রকল্পের আওতায় জেলা কার্যালয়ের ঋণ সীমা- ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা। অক্টোবর/২০১২খ্রি: পর্যন্ত নড়াইল জেলায় এই প্রকল্পের আওতায় ১৫৪টি শিল্প ইউনিটের অনুকূলে ৬০.৩৩ লক্ষ টাকা ঋণ বিতরণ করা হয়েছে এর ফলে ৩৯৬ জনের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে।

 

** আয় বর্ধক কর্মকান্ডের মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচন প্রকল্পঃ-নড়াইল জেলার আওতায় ১৯৯৯ সালে কালিয়া উপজেলায় এবং ২০০০ সালে লোহাগড়া উপজেলায় কার্যালয় স্থাপনসহ এই প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু করা হয়। এ প্রকল্পের আওতায় দারিদ্রতা নিরশন কাল্পে কালিয়া উপজেলায় ২৮৯ জন উদ্যোক্তার মাঝে  ২৮.৯৯ লক্ষ টাকা ঋণ বিতরণ করা হয় এবং এর ফলে ৫৬১ জনের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। লোহাগড়া উপজেলায় ৩৭৬ জন উদ্যোক্তার মাঝে ৩০.৩২ লক্ষ টাকা ঋণ বিতরণ করা হয় এবং এর ফলে ৬৭৪ জনের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। বর্তমানে প্রকল্পটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় নতুন ঋণ প্রদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। ঋণ প্রদান কর্মসূচী পুনরায় চালু করা তথা প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।